শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১০:০০

আগামী নির্বাচনে ঋষি সুনাকের দল পাবে ৬৬ আসন

আগামী নির্বাচনে ঋষি সুনাকের দল পাবে ৬৬ আসন

নির্ধারিত সময়ের আগে নির্বাচন ঘোষণা করে কনজারভেটিভ পার্টি কি বড় ভুল করে ফেলেছে? নির্বাচনী দৌড়ে রেসে টোরিরা কি দ্বিতীয় স্থানেও থাকতে পারবে না? এই প্রশ্ন তুলেছেন নিউ স্টেটসম্যান পত্রিকার সহযোগী রাজনৈতিক সম্পাদক ফ্রেডি হেওয়ার্ড।

নতুন একটি জরিপের বরাত দিয়ে বলা হচ্ছে, কনজারভেটিভরা তৃতীয় স্থানে চলে যাচ্ছে। তারা ৬৬ আসনের বেশী পাচ্ছে না। (নিউ স্টেটসম্যান ০১-০৬-২০২৪)

২০২৪ সালের সাধারণ নির্বাচন সামনে রেখে কনজারভেটিভ পার্টি, লেবার পার্টি, লিবারেল ডেমোক্র্যাটস, রিফর্ম ইউকে ও গ্রিন পার্টিকে নিয়ে ইলেক্টোরাল ক্যালকুলাস নামের একটি সংস্থা বৃহৎ পরিসরে জরিপ করেছে।

তারা ১০ হাজার ভোটারের কৌশলগত ভোটিং প্রক্রিয়াকে বিবেচনায় নিয়ে জরিপের ফলাফল প্রকাশ করেছে গত শুক্রবার। এতে লেবার পার্টির  ৪৬, কনজার্ভেটিভ ১৯, রিফর্ম ইউকে ১২ , লিবারেল ডেমাক্রেটদের সাথে ১০ শতাংশ ভোটার আছে বলে উল্লেখ করেছে।

উক্ত সমীক্ষায় অলিভার ডাউডেন, জেমস ক্লিভারলি, কেমি ব্যাডেনোচ ও  পেনি মর্ডান্ট সহ ১৮ জন প্রভাবশালী কনজার্ভেটিভ মন্ত্রিসভার সদস্য তাদের আসন হারাতে পারে বলেও পূর্বাভাস দিয়েছে।

এই সংস্থার মারওয়ান রিয়াচের মতে, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনানকে উত্তর ইয়র্কশায়ারে রিচমন্ডের নিজের আসনটি ধরে রাখতে ঘাম ঝরাতে হবে। তার জরিপে গ্রিন পাটির্র ৮ শতাংশ সমর্থনে রয়েছে বলেও উল্লেখ করেছেন। যদি লেবার পার্টি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে পারে তাহলে স্যার কেয়ার স্টারমার একটি বিশাল ব্যবধানে ক্ষমতায় আসতে পারেন।

দ্যা টেলিগ্রাফের অন্য একটি বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, কনজারভেটিভদের সবচেয়ে খারাপ সময় যাচ্ছে। তাদের নির্বাচনী পারফরম্যান্সের জন্য মাত্র ৭২ টি আসনে জিততে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।

এমআরপি (মাল্টি-লেভেল রিগ্রেশন এবং পোস্টস্ট্র্যাটিফিকেশন) পোলিং পদ্ধতির মাধ্যমে ২০১৭ সালের সাধারণ নির্বাচনের সময় তাদের ভবিষ্যদ্বাণী সঠিক হয়েছিল।

টোরিদের বর্তমান ৩৬৫ আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতায় তাদের  ভবিষ্যদ্বাণীটি ব্যাপকভাবে প্রভাব ফেলেছিল। এইবার ধারণা করা হচ্ছে যে, আসন্ন নির্বাচনে তাদের আসন মারাত্মকভাবে হ্রাস পাবে।  কিন্তু কেউই ৬৬ আসনের কম পূর্বাভাস দেয়নি।

এই জরিপে আরেকটি চমকের কথা উল্লেখ করা হয়েছে তা হল, রিফর্ম ইউকে বা লিবারেল ডেমাক্রেট- এর যে কোনও একটি  ওয়েস্টমিনস্টারে কার্যকর বিরোধী দলের ভূমিকায় আসতে পারে।

টেলিগ্রাফের এডিটর বেন রিলে স্মিথ মনে করেন, ১০০ জনেরও বেশি সংসদ সদস্য পদত্যাগ করলে দলের ভাগ্য ভালো হতে পারে না। দ্য টেলিগ্রাফের বর্তমান পোল ট্র্যাকার কনজার্ভেটিভদের ২৩.৪,  লেবারকে ৪৪.৭, রিফর্ম ইউকে ১১.২ তৃতীয়, লিব ডেমস ৯.৫-এ, গ্রিনস ৫.৮ এবং এসএনপিকে ২.৭ শতাংশ জনমত দিয়েছেন। (টেলিগ্রাফ ০১-০৬-২০২৪)।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024