রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০২:০৫

বিবিসি বাংলাদেশ সংলাপে কৃষিমন্ত্রী: নতুন টেলিভিশন অনুমোদন দিয়েছে আ’লীগই

বিবিসি বাংলাদেশ সংলাপে কৃষিমন্ত্রী: নতুন টেলিভিশন অনুমোদন দিয়েছে আ’লীগই

নিউজ ডেস্ক: দেশে বেসরকারি খাতে টেলিভিশন দেওয়ার সাহস প্রথম আওয়ামী লীগ সরকারই দেখিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে বিবিসি বাংলাদেশ সংলাপের ৮০তম পর্বে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপির সময়ে টেলিভিশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। এটা ভুলে গেলে চলবে না। এতে প্যানেল আলোচক হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এ এস এম হান্নান শাহ বলেন, ঘোষিত জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করার ইচ্ছে থেকে সরকার করেছে।

অনুষ্ঠানে এক দর্শক প্রশ্ন করেন, সরকার যে জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা ঘোষণা করেছে, এটা কি গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণে আনার একটি চেষ্টা হিসেবে দেখা যেতে পারে? এ প্রশ্নের উত্তরে হান্নান শাহ বলেন, সরকারের ইচ্ছে আছে গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করার। কারণ সরকার গণমাধ্যমকে ভয় করে। এ কারণে সরকার এ ধরেনের সম্প্রচার নীতিমালা করেছে। সরকারের ঘোষিত জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা গণমানুষের প্রত্যাশা ও প্রেসের স্বাধীনতা খর্ব করবে বলেও তিনি অভিযোগ করেন তিনি।

এর পাল্টা জবাবে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, দেশে বেসরকারি খাতে টেলিভিশন দেওয়ার সাহস প্রথম আওয়ামী লীগ সরকারই দেখিয়েছে। এরপর বিএনপির সময়ে আবার টেলিভিশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তিনি বলেন, বর্তমানে যে সম্প্রচার নীতিমালা ঘোষণা করা হয়েছে, এর জন্য একটি কমিশনও গঠন করা হবে। এই কমিশনে সর্বস্থরের লোক জনকে রাখা হবে বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, মিথ্যা, বানোয়াট ও অসত্য সাংবাদিকতা সব সময় পরিতাজ্য। এ কারণে এই নীতিমালা করা হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিভিশনও একটি নীতিমালার আওতায় চলে উল্লেখ করে মতিয়া চৌধুরী বলেন, পরিশীলিত ও পরিশোধিত করে তবেই এ নীতিমালা বাস্তবায়ন করা হবে। অনুষ্ঠানে আরো দুই প্যানেল সদস্য হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন, গণমাধ্যম বিশ্লেষক মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর এবং অর্থনীতিবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এম. এম. আকাশ।

এ সময় মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেন, ঘোষিত সম্প্রচার নীতিমালার এমন বহু ধারা আছে, যার মাধ্যমে সরকার ইচ্ছে করলে গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। কারণ এই নীতিমালায় অনেক ধারা স্পষ্ট নয়। যেমন, এতে বলা আছে বিভ্রান্তকর তথ্য প্রকাশ করা যাবে না। তিনি বলেন, তবে কার কাছে কোনো তথ্য বিভ্রান্তকর, এর কোনো ব্যাখ্যা এই নীতিমালায় রাখা হয়নি।

অনুষ্ঠানে আরেক দর্শক প্রশ্ন করেন, আর কত মৃত্যু হলে সরকার লঞ্চে অতিরিক্ত যাত্রীবহনসহ বিদ্যমান অনিয়মগুলো দূর করতে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে?

পদ্মায় প্রায় তিন’শ যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া লঞ্চটির বিষয় টেনে এনে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, লঞ্চ দুর্ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। এ দুর্ঘটনার পর পর আমাদের নৌ-মন্ত্রী দুর্ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন। সরকার তার দায় দায়িত্ব হিসেবে এই দুর্ঘটনার উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা এর দায়-দায়িত্ব এড়াতে পারি না।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হান্নান শাহ বলেন, বর্তমান সরকার অতীতের অন্যান্য সরকারের মতো। এই জায়গা থেকে বর্তমান সরকার বের হয়ে আসতে পারবে না। পিনাক-৬ ডুবে যাওয়ার ছয় দিনের মধ্যেও লঞ্চটি উদ্ধার করতে না পারায় তিনি সরকারের চরম ব্যর্থতার পরিচয় বলে মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে আরেক দর্শক প্রশ্ন করেন, গাজায় ইসরায়েলি অভিযানে প্রচুর সংখ্যক ফিলিস্তির মৃত্যুর ঘটনায় প্রভাবশালী দেশগুলোর নির্লিপ্ত থাকায় তাদের ভূমিকা নিয়ে বিশ্বজুড়ে সমালোচনা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ কি ধরনের ভূমিকা রাখতে পারে?

এ বিষয়ে হান্নান শাহ বলেন, মার্কিনদের কারণে অনেকের অনেক কিছু করার ইচ্ছে থাকলেও কিছু করতে পারা যায় না। তারপরও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে জাতিসংঘের মাধ্যমে ফিলিস্তিনিদের জন্য রিলিফ ও চিকিৎসক দল পাঠানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আহ্বান জানান তিনি।

এ বিষয়ে মতিয়া চৌধুরী বলেন, আমরা চাইলেই একটা দেশে যেতে পারি না। আমরা ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে সরকারি ও দলীয়ভাবে নিন্দা জানিয়েছি। যে দেশ ও গোষ্ঠী সন্ত্রাসবাদ করে তাদেরকে আমরা সব সময় কেবল নিন্দাই নয়, ঘৃণাও জানাই। বিবিসি মিডিয়া অ্যাকশন ও বিবিসি বাংলার যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠানে ওয়ালিউর রহমান মিরাজের প্রযোজনায় এতে উপস্থাপনা করেন আকবর হোসেন।




Comments are closed.



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024