রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০১:৩৭

দলীয় নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

দলীয় নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত ওই  বিবৃতিতে বলা হয়, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত পাঁচ সিটি কর্পোরেশনে সুষ্ঠু নির্বাচনে গণতন্ত্র ও জনগণ বিজয়ী হয়েছে। প্রমাণিত হয়েছে, নির্বাচন কমিশনের নেতৃত্বে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব। পাঁচ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে হারের পর এক বিবৃতিতে আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনগুলোর নেতা কর্মীদের ‘অন্তর্কলহ’ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়েছেন দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিরোধী দলের মিথ্যা প্রচার, ভিত্তিহীন অভিযোগ এবং নির্বাচনকে বিতর্কিত করার সকল অপচেষ্টা সত্ত্বেও বর্তমান সরকারের অধীনে জাতীয় এবং স্থানীয় সরকার পর্যায়ে বিভিন্ন নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন হয়েছে। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এবং নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে মর্মে সংবাদ ও তথ্য দিয়েছে। গাজীপুরসহ পাঁচটি সিটি নির্বাচন ‘সুষ্ঠুভাবে’ অনুষ্ঠিত হওয়ায় নির্বাচন কমিশন, জনগণ, রাজনৈতিক দল, প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, গণমাধ্যমসহ সবাইকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

বিবৃতিতে বলা হয়, সব অপপ্রচার ও মিথ্যা অভিযোগ এবং সহিংসতা বন্ধ করে বিরোধীদলসহ সবার অংশগ্রহণে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে করার জন্যও সবার সহযোগিতা চান প্রধানমন্ত্রী। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জনগণের রায়ের প্রতি সম্মান রেখে সরকারের ক্রটি-বিচ্যুতি শুধরে জাতির প্রত্যাশা পূরণ করে মহাজোট সরকার গণতন্ত্র, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রাকে সমুন্নত রাখার জন্য আগামী দিনগুলোতে কাজ করবে। অতীতে বিএনপি সরকারের সময় কারচুপি ও ক্ষমতাসীন দলের ক্ষমতার অপব্যবহারের কারণে নির্বাচন নিয়ে আস্থার সঙ্কট তৈরি হয়েছিল মন্তব্য করে বিবৃতিতে বলা হয়, বর্তমান সরকারের অধীনে বিভিন্ন নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ায় আবার সবার আস্থা ফিরে এসেছে। এই আস্থা কোনোভাবেই নস্যাৎ করা যাবে না এবং বর্তমান সরকার আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুষ্ঠু নির্বাচনী প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখতে বদ্ধপরিকর।

সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বিদায়ী মেয়রদের নেতৃত্বে ওইসব সিটি কর্পোরেশন এলাকায় যে নজীরবিহীন উন্নয়ন হয়েছে তা জনগণের কল্যাণের স্বার্থে আমাদের সরকার অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিচ্ছে।

গাজীপুরের নির্বাচনের পর স্থানীয় পর্যায়ে আওয়ামী লীগের মধ্যে বিভাজনের বিষয়টি স্পষ্ট হয় দলীয় নেতাদের কথায়। ওই ভোটের দিন দেশের বাইরে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। লন্ডন ও বেলারুশ সফর শেষে বুধবার তিনি দেশে ফেরেন। গত ১৫ জুন রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট এবং ৬ জুলাই গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমথির্ত প্রার্থীদের পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা।

 




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *



পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
All rights reserved © shirshobindu.com 2012-2024