মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩৯

দায় মেটাতে সরকারের কাছে ৮০০ কোটি টাকা চায় বিমান

দায় মেটাতে সরকারের কাছে ৮০০ কোটি টাকা চায় বিমান

এখানে শেয়ার বোতাম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শীর্ষবিন্দু নিউজ: দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় উড়োজাহাজ পরিবহন সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স তার দায় মেটাতে সরকারের কাছে ৮০০ কোটি টাকা চেয়েছে। বিমানের  ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেভিন জন স্টিল গত ১৯শে সেপ্টেম্বর বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিবের কাছে চিঠিটি পাঠিয়েছেন বলে জানা যায়।

সূত্র মতে এতে বলা হয়, বিমানের বর্তমান দায় এক হাজার ৪২৬ কোটি টাকা। এর মধ্যে ৮০০ কোটি টাকা জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজন। এটা দেয়া সম্ভব না হলে বহরে থাকা ও যুক্ত হতে যাওয়া বোয়িং-৭৭৭-৩০০ ও বোয়িং-৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ বিক্রি করে লিজে নেয়া উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি চাওয়া হয়েছে।

তাতে বলা হয়, বিমানের বহরে নতুন উড়োজাহাজ, অনেক সম্পত্তি ও যন্ত্রপাতি থাকলেও নগদ অর্থ নেই। অথচ নগদ অর্থের প্রয়োজন। সরকার তা না দিতে পারলে বহরে থাকা ও আগামীতে যুক্ত হতে যাওয়া বোয়িং-৭৭৭-৩০০ ও বোয়িং-৭৩৭-৮০০ বিক্রি করে জ্বালানি সাশ্রয়ী উড়োজাহাজ লিজ নিয়ে ফ্লাইট পরিচালনার বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত প্রয়োজন। ২০১৪-১৫ সাল নাগাদ বিমানকে লাভজনক করতে এসব সিদ্ধান্ত জরুরি। পাশাপাশি বিমানের তারল্য সঙ্কট বিবেচনায় নিয়ে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ ও পদ্মা অয়েলের পাওনা পরিশোধও আপাতত স্থগিত রাখার বিষয়ে মত দিয়েছেন বিমানের এমডি।

সূত্র মতে, ২০০৮ সালে ৮৭২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে বোয়িং কোম্পানি থেকে আটটি উড়োজাহাজ কেনার চুক্তি করে বিমান কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে রয়েছে চারটি  বোয়িং-৭৭৭-৩০০ ইআর ও চারটি বোয়িং-৭৮৭-৮ (ড্রিমলাইনার) উড়োজাহাজ। পরে বোয়িং-৭৩৭-৮০০ মডেলের আরও দু’টি উড়োজাহাজ কেনার আদেশ দেয় বিমান। ক্রয় আদেশ দিতে ওই সময় স্থানীয় ৯টি ব্যাংক থেকে চার দশমিক ৫৭ শতাংশ সুদে সিন্ডিকেট ঋণ নেয় বিমান। ২০১১ সালের ১৫ই মার্চ বিমানের সঙ্গে বোয়িংয়ের প্রাথমিক চুক্তি হয়। একই বছরের ২২শে এপ্রিল বোয়িংয়ের সঙ্গে ১০টি উড়োজাহাজ কেনার চুক্তি চূড়ান্ত করে তারা।

চুক্তি অনুযায়ী, প্রথম দুটি বোয়িং-৭৭৭-৩০০ ইআর বিমানের বহরে যুক্ত হয় ২০১১ সালের অক্টোবর ও নভেম্বরে। চুক্তি অনুযায়ী আগামী বছরের প্রথম প্রান্তিকে আরও দুটি বোয়িং-৭৭৭-৩০০ ইআর উড়োজাহাজ বিমানের বহরে যুক্ত হওয়ার কথা। ওদিকে ২০১১-১২ অর্থবছরে ৬০০ কোটি টাকা লোকসান দেয় বিমান। ২০১২-১৩ অর্থবছরে তা ২০০ কোটি টাকায় নেমে আসে। চলতি অর্থবছরে লোকসান শ’ কোটি টাকার মধ্যে রাখার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

চিঠি পাওয়ার বিষয়টি  বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয় প্রাপ্তি স্বীকার করে গণমাধ্যমকে জানান, বিমানের সঙ্কট মোকাবিলায় এরই মধ্যে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এটা সরকারের সিদ্ধান্ত। সময় হলে সব জানানো হবে। সূত্র জানায়, আগামী ১লা ডিসেম্বরের আগে দু’টি বোয়িং-৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজের প্রি ডেলিভারি পেমেন্ট (পিডিপি) বাবদ বোয়িং কোম্পানিকে ৪২৫ কোটি টাকার মতো পরিশোধ করতে হবে।


এখানে শেয়ার বোতাম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com