বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪১

প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতেই এ কাণ্ড

প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতেই এ কাণ্ড

এখানে শেয়ার বোতাম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গ্যালারী থেকে নিউজ ডেস্ক: অ্যাশেজের জয়ের পর পিচের উপর ইংল্যান্ডের কয়েকজন ক্রিকেটারের মুত্রত্যাগের কথা স্বীকার করেছেন গ্রায়েম সোয়ান। এতে প্রবল সমালোচনা হলেও ইংলিশ স্পিনারের মতে, প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে এ কাজ করাটা তেমন দোষের কিছু নয়।

অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যমে বলা হয়েছিল, ইংল্যান্ডের দুই পেসার জেমস অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রড এবং ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেনসহ আরো কয়েকজন ক্রিকেটার এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছেন।

ঘটনার বিবরণে ৩৪ বছর বয়সী সোয়ান বলেন, আমরা দলের সবাই মিলে পিচের মাঝখানে গিয়ে বিয়ার পান করছিলাম, গান গাইছিলাম, একে অপরের সঙ্গ উপভোগ করছিলাম। তখন হয়ত দু-একবার প্রকৃতির ডাক এসেছিল, তবে এটা দোষের কিছু নয়। সোয়ান বলেন, গভীর রাতে আনন্দ উল্লাসের মাঝে তার কয়েকজন সতীর্থ মুত্রত্যাগ করে থাকতে পারে। তবে নির্দিষ্ট করে কারোর নাম বলেননি সোয়ান। সময়টি ছিল মাঝরাত, অন্ধকার মাঠে পিচের মাঝখানে সম্পূর্ণ ব্যাক্তিগত একটা উদযাপন ছিল আমাদের, যোগ করেন আসরের সর্বোচ্চ ২৬ উইকেট শিকারী সোয়ান। তবে সতীর্থদের কৃতকর্মের পক্ষে সোয়ান যতই সাফাই গান না কেন, এ নিয়ে তীব্র সমালোচনা এরই মধ্যে শুরু হয়েছে।

ইলিংওয়ার্থের রাগের প্রধান কারণ ঘটনাটি ওভালে ঘটেছে। কারণ প্রায় ১৩১ বছর আগে ১৮৮২ সালে এখানেই হয়েছিল অ্যাশেজের প্রথম ম্যাচ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সবচেয়ে বড় কথা এটা মাঠ কর্তৃপক্ষের প্রতি অসম্মান দেখানো। ওভালেই অ্যাশেজের জন্ম। এই মাঠের অনেক ইতিহাস আছে। খেলোয়াড়দের তার প্রতি সম্মান দেখানো উচিত। ওভালের এই মাঠটি ব্যবহার করে কাউন্টি দল সারে। দলটির প্রধান নির্বাহী রিচার্ড গুল্ড তাই খুব ক্ষেপেছেন জড়িতদের প্রতি। তবে সফল ইংল্যান্ড দলের কোনো উদযাপনেই আমরা ব্যাঘাত ঘটাতে চাই না।

সমালোচনা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি স্পিনার শেন ওয়ার্নও। তার মতে, ওভালের মতো পুরনো ও ঐতিহাসিক স্টেডিয়ামে এমন ঘটনা ঘটানো ন্যাক্কারজনক। তবে শুধু সমালোচিত হয়েই হয়তো বা পার পাবেন না দোষীরা। বৃটেনের ক্রীড়া মন্ত্রী এর তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে।

 

 

 

 

এই যেমন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক রে ইলিংওয়ার্থ ক্রিকেটারদের এই আচরণকে ‘ছেলেমানুষি’ বলে উল্লেখ করেছেন। তাদের শাস্তিও দাবী করেছেন তিনি।

“যদি ইসিবি, খেলার স্পন্সর ও এর সঙ্গে জড়িতরা ঘটনাটির উপর দৃষ্টি দেয় তাহলে এর সঙ্গে জড়িত খেলোয়াড়েরা তাদের প্রাপ্য শাস্তি পাবে।”

 

 

 

 

তবে আমাদের পিচ যদি এমনভাবে ব্যবহৃত হয় তাহলে স্বাভাবিকভাবেই আমরা নাখোশ হবো।”

“আমাদের মনে হয় দুই দলের জন্যেই মাঠে আমরা যথেষ্ট টয়লেটের ব্যবস্থা রেখেছি” যোগ করেন গুল্ড।

 


এখানে শেয়ার বোতাম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  






পুরানো সংবাদ সংগ্রহ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
All rights reserved © 2021 shirshobindu.com